×
ব্রেকিং নিউজ :
ত্রিশালে নজরুল জন্মজয়ন্তীর দ্বিতীয় দিনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান “দুর্জয় প্রাণের আনন্দে” প্রতিপাদ্যের সাথে নারী ও কিশোরীদের ক্ষমতায়ন উদযাপিত হচ্ছে “ওয়াও ভার্চ্যুয়াল বাংলাদেশ ২০২২” উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘটমায় নিহত ৫ আহত ৬ বিইউপি’র শিক্ষার্থীদের আইএসপিআর পরিদর্শন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে অস্ট্রেলিয়া অ্যাওয়ার্ডস প্রশংসনীয় অবদান রাখছে : স্পিকার বৈশ্বিক আর্থিক প্রভাব সাধারণ মানুষের ওপর ন্যূনতম পর্যায়ে রাখতে সরকার চেষ্টা করছে : অর্থমন্ত্রী সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমেই বাংলাদেশকে থ্যালাসেমিয়া মুক্ত করা সম্ভব : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী পর্যটন প্রসারে দেশের ইতিবাচক ইমেজ বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে হবে : মাহবুব আলী বাংলাদেশ-পর্তুগাল ইন্টার-পার্লামেন্ট ফ্রেন্ডশিপ গ্রুপ গঠনের প্রস্তাব
  • আপডেট টাইম : 09/11/2020 02:45 PM
  • 874 বার পঠিত

১২ সেকেন্ড যেন আস্ত একখানা ‘ঝড়’ শিলাজিতের জীবনে। সামান্য এইটুকু সময় জানিয়ে দিল স্ত্রী সৃজিতা অন্য পুরুষে আসক্ত। ছেলে কোকেনের নেশায় বুঁদ। মেয়ে বয়সে অনেক বড় এক বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে সম্পর্ক গড়েছে!

এক সঙ্গে এতগুলো ঘটনা তছনছ হয়ে যাওয়ার পক্ষে যথেষ্ট। কিন্তু তছনছ হননি শিলাজিৎ। কারণ, পুরোটাই ঘটেছে স্বপ্নে! সেই ১২ সেকেন্ড ১২ মিনিটে ধরে মানুষের জীবনের ভাল-মন্দকে ছোট্ট করে বলার চেষ্টা করেছেন পরিচালক অংশুমান বন্দ্যোপাধ্যায়।

লকডাউন কি মানুষের সাদা-কাল দিক চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে? তাই এই ছবি? অংশুমানের দাবি, ‘‘শুধু সাদা-কালো নয়, মানুষের ‘ভিতরের আমি’ ‘বাইরের আমি’ও ধরা দিয়েছে গত ৮ মাসে। তাকে ধরে রাখার লোভ সামলাতে পারিনি। তাই মনের গভীরে লুকিয়ে থাকা ‘গোপন আমি’র হদিশ দিতেই বানালাম শর্ট ফিল্ম ‘১২ সেকেন্ড।’’

অংশুমানের ক্যামেরায় স্বপ্ন ঘুরেছে দেবাঞ্জনকে ঘিরে। শিলাজিৎ যাকে জীবন্ত করেছেন। পরিচালকের মতে, দেবাঞ্জনের পাগলামো ধরতে পারতেন দু’জন অভিনেতা, শিলাজিৎ আর ঋত্বিক চক্রবর্তী। শিলাজিৎ অংশুমানের কমফোর্ট জোন। তাই তিনিই মুখ্য ভূমিকায়। শ্রীলেখা মিত্র তাঁর স্বপ্নসঙ্গিনী। পর্দায় ফের স্বামী-স্ত্রী। অনেক বিতর্ক পিছনে ফেলে ছবির দুনিয়ায় শ্রীলেখা ফিরেছেন অংশুমানের এই ছবি দিয়েই। যদিও ‘সৃজিতা’ চরিত্র খুব নতুন নয় তাঁর কাছে। তবু কিসের আকর্ষণে রাজি হলেন? প্রশ্নের উত্তরে আনন্দবাজার ডিজিটালকে শ্রীলেখা বললেন, ‘‘আকর্ষণের একাধিক কারণ। নতুনদের সঙ্গে কাজের উত্তেজনা। শিলাজিতের সঙ্গে ফের জুটি বাঁধার সুযোগ। ভাল গল্প। এবং এঁরা তথাকথিত চেনাজানাদের থেকে অনেক বেশি যেন নিরাপদ। তাই...।’’

১২ সেকেন্ডে একজন ভাল অভিনেতার ‘খিদে’ পূরণ হয়েছে? একটু চিন্তার পর শ্রীলেখার মত, ‘‘মনস্তত্ত্ব আমার প্রিয় বিষয়। তাই এই কাজ বারেবারে করলেও একঘেয়েমি আসে না। তা ছাড়া, এই ধরনের চরিত্র বাইরে থেকে দেখলে ‘এক’ মনে হয়। অভিনয়ের সময়ে দেখা যায় প্রচুর শেড। আমি খুশি।’’

তার পরেই স্বগতোক্তি, অনেক দিন কমেডি চরিত্র পাননি তিনি। বেশ মুচমুচে, ব্যঙ্গের রসে জড়ানো এই ছবি, যা অভিনয় করতে করতে তৃপ্তি দেবে।

ছবিতে দেখা যাবে নতুন দুই মুখ অরূপ, এনাক্ষীকে। পরিচালকের ভাষায় এঁরা লম্বা রেসের ঘোড়া। গানের দায়িত্বে রুদ্র সরকার। বাংলা ছবিতে সম্ভবত এই প্রথম টাইটেল সং-এ র্যাপ শোনা যাবে। যা লিখেছেন সৈকত ঘোষ। চিত্রনাট্যে সুপর্ণা ঘোষ মিত্র।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...