×
ব্রেকিং নিউজ :
  • আপডেট টাইম : 23/01/2023 03:07 PM
  • 31 বার পঠিত

থাইল্যান্ডের মধ্যাঞ্চলে যাত্রীবাহী একটি ভ্যানগাড়ি দুর্ঘটনায় দুই শিশুসহ ১১ জন প্রাণ হারিয়েছেন। চন্দ্র নববর্ষের ছুটিতে গাড়িটি দুর্ঘটনার কবলে পড়লে তাতে আগুন ধরে গেলে এসব মানুষ মারা যায়। সোমবার পুলিশ এ কথা জানিয়েছে।
দুর্বল সড়ক ব্যবস্থাপনার কারণে দেশটিতে সড়ক দুর্ঘটনা একটি স্বাভাবিক বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে, বিশেষকরে সরকারি ছুটির দিনে।
পুলিশ কর্ণেল ইঙ্গিওস পোলদেজ জানান, ১২ জনকে বহনকারী ভ্যানটি উত্তর-পূর্ব আমনাত চারোয়েন প্রদেশ থেকে ব্যাংক অভিমুখে যাওয়ার সময় এটি মধ্য নাখোন রাতচাসিমা প্রদেশে শনিবার রাতে মহাসড়ক থেকে ছিটকে পড়ে আগুন ধরে যাওয়ায় এ মর্মান্তিক ঘটনা ঘটে।
ইঙ্গিওস এএফপি’কে বলেন, দুর্ঘটনার পর এক ব্যক্তি জানালা দিয়ে বের হতে সক্ষম হলেও অন্য  সেখানে আটকা পড়ে এবং আগুনে পুড়ে মারা যায়।
দুর্ঘটনায় প্রাণে বেঁচে যাওয়া ২০ বছর বয়সী থানাচিট কিংকাউ বলেন, তিনি দুর্ঘটনার সময় ঘুমিয়ে ছিলেন। পরে যাত্রীদের চিৎকার শুনে তিনি জেগে উঠেন।
তিনি বলেন, ‘আমি ঘুম থেকে জেগে উঠে জানতে পারি যে, ভ্যানটি উল্টে গেছে। তবে কি হয়েছে তা আমি দেখতে পাইনি।’
‘দুর্ঘটনার পর গাড়িটির পেছন দিক থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে এবং তা পুরো ভ্যানে ছড়িয়ে পড়ে।’
তিনি আরো বলেন, ‘আমি গাড়ির জানালায় লাথি মারতে শুরু করি এবং একটি ছোট ছিদ্র দিয়ে বের হতে সক্ষম হই।’
‘এর পরপরই ভ্যানটি বিস্ফোরিত হয়।’
স্থানীয় উদ্ধারকারী দলের নিখোম সিউন নামের এক স্বেচ্ছাসেবক বলেন, ভ্যানটিতে আগুন ধরে যাওয়ার কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই বিস্ফোরণ ঘটে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...