×
ব্রেকিং নিউজ :
  • আপডেট টাইম : 24/01/2023 07:38 PM
  • 27 বার পঠিত

ফেনী জেলা শহরের নবীনচন্দ্র সেন কালচারাল সেন্টারে চলছে ফাইন আর্টস ফোরামের সপ্তাহব্যাপী চিত্রকর্ম প্রদর্শনী। ফেনীতে জন্ম এমন প্রখ্যাত নবীন এবং প্রবীণ ২৩ শিল্পীর অংশগ্রহণে সপ্তাহব্যাপী এ আয়োজনে আগামী ২৮ জানুয়ারি শেষ হবে। সংগঠনের সভাপতি কাজী গোলাম কিবরিয়া বলছেন, ফেনীতে শিল্পকলার পুনঃজাগরণের সূচনা এটি। দীর্ঘদিন ধরে ফেনীর চারুকলা ঝিমিয়ে পড়েছিল। তার জাগরণে হচ্ছে এ প্রদর্শনী।
মঙ্গলবার প্রদর্শনী ঘুরে দেখা গেছে, দর্শনার্থী হিসেবে এসেছেন সব বয়সী শ্রেণি পেশার মানুষ। সকলের চোখেমুখে অভিব্যক্তি ছিল চোখে পড়ার মত। কেউ ঘুরে দেখছেন, কেউ ছবির বিষয়ে জানতে চাইছেন।
প্রদর্শনী ঘুরে দেখা গেছে, নানা সাইজের ক্যানভাসে ফুটে উঠেছে নিসর্গ, দুঃখ, আনন্দ ও বেদনার নানা প্রতিচ্ছবি। তেল রং, জল রং ও মিশ্র মাধ্যমে আঁকা ছবিতে সময়ের আবর্ত ধরে রাখতে চেয়েছেন শিল্পীরা। প্রদর্শনী দেখতে আসা আনোয়ারুল নামে কিশোর নিজের অভিব্যক্তি প্রকাশ করে বলেন, ফেনীতে এত গুনী শিল্পী আছে তা জানতাম না। ফেনীতে এ প্রথম চিত্রকর্ম প্রদর্শনীর আয়োজন দেখে অভিভূত হয়েছি।
অংশগ্রহণকারী চিত্রশিল্পীরা দেশ বিদেশের চিত্রপ্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করেছেন এবং দেশের জন্য সুনাম অর্জন করেছেন। অংশগ্রহণকারী চিত্রশিল্পীরা হলেন, সমর মজুমদার, কাজি গোলাম কিবরিয়া, বিপ্লব রায়, কিষান মোশারফ, মো. সাজ্জাদ ইসলাম, ফাহাদ হাসান কাজমী, নওশিন তারানুম, শাকিলা চয়ন, আশরাফুল হাসান, তৌহিদ শিমুল, নাহিদা শারমিন, কুদসিয়া ডালিয়া, মাজহারুল ইসলাম পাটোয়ারী, শাহনাজ আক্তার আঁখি, শিবলী হাওলাদার, তানজিনা আক্তার, সুভাষ সুত্রধর, মুন রহমান, আশিকুর রহমান, হায়দারী আন্দালুসিয়া, সূচি ধর, পিসি রুবেল ও সৌরভ শীল।
উল্লেখ্য, গত ২২ জানুয়ারি প্রদর্শনীর উদ্বোধনে আসেন বাংলাদেশ টেলিভিশনের প্রাক্তন পরিচালক বরেণ্য চিত্রশিল্পী আবদুল মান্নান।
ফোরামের সভাপতি কাজী গোলাম কিবরিয়া বলেন, এ প্রদর্শনীতে ২৩জন শিল্পী অংশগ্রহণ করছেন। তবে ফেনীর শিল্পীর সংখ্যা এর চেয়ে অনেক বেশি। এছাড়াও ফাইন আর্টস ফোরাম ফেনী কেন্দ্রীক সংগঠন হলেও ফেনীতেই সীমাবদ্ধ না থেকে দেশ তথা বহির্বিশ্বের শিল্পে কাজ করার ইচ্ছা পোষণ করে।
ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক ফাহাদ হাসান কাজমী বলেন, শিল্পকলার মাটি ফেনীর পটভূমিকে সর্বদাই আলোকিত করে রেখেছে নবীন ও প্রবীন শিল্পীদের পদচারণায়। বাংলাদেশের শিল্পকলার সকল শাখায় চিত্রকলা থেকে শুরু করে চলচিত্র, নাট্যকলা, সাহিত্যে ফেনীর শিল্পীদের পদচারণা প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম বয়ে চলেছে। তাছাড়া সামাজিক নানান অবক্ষয়ের এ সময়ে শিল্পই পারে এসমস্ত অবক্ষয় থেকে সমাজকে রক্ষা করতে। তাই কেন্দ্রীক শিল্প চর্চার পাশাপাশি বাইরে গিয়ে শিল্পের আলো ছড়িয়ে দিতে হবে সর্বত্র।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...