×
ব্রেকিং নিউজ :
ত্রিশালে নজরুল জন্মজয়ন্তীর দ্বিতীয় দিনে আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান কুসিক নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালেন আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ইমরান “দুর্জয় প্রাণের আনন্দে” প্রতিপাদ্যের সাথে নারী ও কিশোরীদের ক্ষমতায়ন উদযাপিত হচ্ছে “ওয়াও ভার্চ্যুয়াল বাংলাদেশ ২০২২” উল্লাপাড়ায় সড়ক দূর্ঘটমায় নিহত ৫ আহত ৬ বিইউপি’র শিক্ষার্থীদের আইএসপিআর পরিদর্শন দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে অস্ট্রেলিয়া অ্যাওয়ার্ডস প্রশংসনীয় অবদান রাখছে : স্পিকার বৈশ্বিক আর্থিক প্রভাব সাধারণ মানুষের ওপর ন্যূনতম পর্যায়ে রাখতে সরকার চেষ্টা করছে : অর্থমন্ত্রী সচেতনতা সৃষ্টির মাধ্যমেই বাংলাদেশকে থ্যালাসেমিয়া মুক্ত করা সম্ভব : টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী পর্যটন প্রসারে দেশের ইতিবাচক ইমেজ বিশ্বের কাছে তুলে ধরতে হবে : মাহবুব আলী বাংলাদেশ-পর্তুগাল ইন্টার-পার্লামেন্ট ফ্রেন্ডশিপ গ্রুপ গঠনের প্রস্তাব
  • আপডেট টাইম : 01/01/1970 08:00 PM
  • 694 বার পঠিত

আনারস খেতে অনেকেই পছন্দ করে। গ্রীষ্মকালীন এ ফলটির মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। আনারস অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভালো উৎস। এটি প্রদাহ কমাতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে।

আনারসের মধ্যে থাকা ব্রোমেলেইন এনজাইমের কারণে এটি হজম ভালো করে। এ ফলটি ক্যানসার প্রতিরোধেও উপকারী। আনারসে রয়েছে প্রদাহরোধী উপাদান। এটি আর্থ্রাইটিস প্রতিরোধে কার্যকর।

তবে এত পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ এ ফলটি কি গর্ভাবস্থায় খাওয়া উপকারী?  ভারতীয় ওয়েবসাইট টাইমস অব ইন্ডিয়া ও স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট হেলথলাইন জানিয়েছে এর উত্তর।

আনারস বেশ পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ ফল। তবে এ ফলটি থেকে গর্ভবতী নারীকে একটু দূরেই থাকতে বলা হয়। কারণ, আনারসের মধ্যে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় ব্রোমেলেইন। এ এনজাইমটি সারভিক্সকে নরম করে দেয় এবং জরায়ুর সংকোচনকে উদ্দীপ্ত করে। এ কারণে আগেভাগে সন্তান জন্ম হতে পারে, যেটি মা ও শিশু উভয়ের জন্যই ক্ষতিকর।

এ ছাড়া ব্রোমেলেইন গর্ভপাতও ঘটিয়ে দিতে পারে। তাই গর্ভাবস্থায় আনারস খাওয়া এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...