Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
বেগম রোকেয়া ছিলেন দূরদৃষ্টিসম্পন্ন একজন আধুনিক নারী : প্রধানমন্ত্রী বেগম রোকেয়া দিবস আগামীকাল গণমানুষের অধিকার হরণে চ্যাম্পিয়ন বিএনপি: ওবায়দুল কাদের সারাদেশের সরকারি-বেসরকারি স্কুলে ভর্তির অনলাইন আবেদনের সময় বাড়ল নেপাল ও ভুটানে জলবিদ্যুৎ উৎপাদন করে ঢাকা-দিল্লী উপকৃত হতে পারে : প্রধানমন্ত্রী পুরাতন-নতুন ডাকাতিয়া নদী সেচ ও নিষ্কাশন প্রকল্প দ্রুত বাস্তবায়নের সুপারিশ ‘গ্রিন ফ্যাক্টরি এওয়াড-২০২০’ প্রদান প্রধানমন্ত্রীর উল্লাপাড়ায় স্থানীয় সাংসদকে নিয়ে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদে উপজেলা আওয়ামী লীগের সংবাদ সম্মেলন দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও ছয়জনের মৃত্যু কুমিল্লা মুক্ত দিবস আজ ৮ ডিসেম্বর
  • আপডেট টাইম : 20/10/2021 11:10 PM
  • 44 বার পঠিত
ফাইল ছবি

সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ার আহবান জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি।  দেশের বিভিন্ন স্থানে চলমান সাম্প্রদায়িক সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আজ সন্ধ্যায় স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদ (স্বাশিপ) আয়োজিত এক ভার্চুয়াল আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন তিনি।
‘সামাজিক সম্প্রীতি সুরক্ষায় শিক্ষকদের ভূমিকা’ শীর্ষক এ সভায়  স্বাশিপ সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ মোঃ শাহজাহান আলম সাজু'র সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন সংগঠনের সভাপতি প্রফেসর আবদুল মান্নান চৌধুরী।
প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিক্ষা মন্ত্রী বলেন,সফল রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ যখন একটি মর্যাদাশীল জাতি হিসেবে বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে তখন একাত্তরে পরাজিত শক্তি  ও জনগণের প্রত্যাখ্যাত  একটি মহল বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টের ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।
শিক্ষকদের প্রতি এই অপশক্তির বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তোলার আহবান জানিয়ে  তিনি আরো বলেন, শিক্ষকরা এখনো সমাজে সবচেয়ে সম্মানী ব্যক্তিত্ব। এক্ষেত্রে সব চেয়ে বেশি ভূমিকা পালন করতে পারেন শিক্ষক মন্ডলি।
 শিক্ষামন্ত্রী এ ব্যাপারে সর্বস্তরের শিক্ষকদের যার যার অবস্থান থেকে ছাত্র অভিভাবক ও সর্বস্তরের জনগণকে সচেতন করার আহবান জানান।
তিনি বলেন, মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন ছিল  একটি অসম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক ও বৈষাম্যহীন  বাংলাদেশ, যেখানে প্রতিটি মানুষ তার সমান অধিকার ও মর্যাদা নিয়ে বসবাস করবে।
শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যার মধ্য দিয়ে  এদেশে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির উত্থান ঘটে । এ সময় স্বাধীনতা বিরোধীরা সমাজ ও রাষ্ট্রে সুপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে। সে অপশাক্তি আজো অত্যন্ত সক্রিয়। এদের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে।
আলোচনা সভায় আরো বক্তৃতা করেন প্রফেসর সাজিদুল ইসলাম,অধ্যক্ষ সাইদুর রহমান পান্না, প্রধান শিক্ষক মেহেরুন্নেছা, প্রধান শিক্ষক সামসুল হুদা,অধ্যক্ষ নজরুল ইসলাম, অধ্যক্ষ মাসুদ আহমেদ, অধ্যক্ষ শরীফুল ইসলাম,অধ্যক্ষ মোশাররফ হোসেন মুকুল,অধ্যক্ষ গোলাম মোস্তফা খোশনবিশ, উপাধ্যক্ষ রেজাউল করিম সিদ্দিকী এবং সহকারী অধ্যাপক আলী আশরাফ শামীম।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...