×
ব্রেকিং নিউজ :
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে ঢাবি আ্যলামনাই অ্যাসোসিয়েশনের শ্রদ্ধা দেশে করোনা ভাইরাস বৃদ্ধি পাওয়ায় উল্লাপাড়া জনতার হাট পরিদর্শন কালে সার্জিক্যাল মাক্স বিতরণ সুনামগঞ্জের বাউল শিল্পীদের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ প্রধানমন্ত্রীর কাছে বুয়েট ছাত্রলীগের নেতা আরিফ রায়হান দীপ হত্যার বিচার চাইলেন দীপের বাবা লিসবনে বাংলাদেশ দূতাবাসের চ্যান্সারি ভবন উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী রপ্তানি বৃদ্ধির মাধ্যমে কৃষিকে আরও সমৃদ্ধ করতে হবে : কৃষিমন্ত্রী বঙ্গবন্ধুর আদর্শে শিশুদের গড়তে অভিভাবকদের প্রতি ঢাবি উপাচার্যের আহ্বান গ্রিসে বিশেষ প্রদর্শনীতে ‘হাসিনা: এ ডটারস টেল’ করোনায় আরও ৬ জনের মৃত্যু দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকারের মহাপরিকল্পনা রয়েছে : পরিকল্পনামন্ত্রী
  • আপডেট টাইম : 20/06/2022 08:34 PM
  • 53 বার পঠিত

বিএনপি নেতারা বন্যাকবলিত মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে সরকারের বিরুদ্ধে সমালোচনায় ব্যস্ত বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য এ্যাডভোকেট জাহাঙ্গীর কবির নানক।
তিনি বলেন, ‘বন্যাকবলিত এলাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা নৌকা দিয়ে বানভাসি মানুষের হাতে হাতে খাবার পৌঁছে দিচ্ছে। অথচ বিএনপির নেতারা ‘এসি’ রুমে বসে সরকারের এবং আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে। মির্জা ফখরুলসহ বিএনপির নেতারা কথা বেশি বলেন, কিন্তু কাজ করেন না। আর আওয়ামী লীগ কাজ বেশি করে, কথা কম বলে। এটাই আমাদের আদর্শ।’ 
নানক আজ সোমবার রাজধানীর শ্যামলী ক্লাব মাঠে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের আদাবর থানা এবং এর অন্তর্গত ৩০ ও ১০০ ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সম্মেলনে এসব কথা বলেন। 
আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বলেন, সিলেটে ভয়াবহ বন্যার  কারণে মানুষ দিশেহারা হয়ে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সারারাত ঘুমাতে পারেননি। তিনি সারারাত জেগে সেনাবাহিনী, নৌবাহিনী, কোস্টগার্ডসহ সকল সংস্থাকে নির্দেশনা প্রদান করেছেন বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়াতে। শুধু তাই নয়, দলীয় নেতাকর্মী ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ অন্যান্য সংগঠনের নেতাকর্মীদের রাতের বেলায় নির্দেশ করেছেন- এক মুঠো খাবার নিয়ে বানভাসি মানুষের পাশে দাঁড়াও। এখনও সেই চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।
‘আওয়ামী লীগ পদ্মা সেতু নিয়ে ব্যস্ত’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের এমন বক্তব্যের সমালোচনা করে জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, বন্যাকবলিত এলকায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের প্রতিটা বাড়ি একটা ক্যাম্পে পরিণত হয়েছে। সেখানেই বানবাসীদের জন্য তারা রান্না করছে। নৌকা দিয়ে সেই খাবার বানভাসি মানুষের হাতে হাতে পৌঁছে দিচ্ছে। অথচ বিএনপির নেতারা ‘এসি’ রুমে বসে সরকারের এবং আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে। ঠিক একইভাবে মহামারী করোনাকালেও তারা মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে আওয়ামী লীগের সমালোচনা করেছিল। আসলে বিএনপির নেতাদের লজ্জা নেই।
সম্মেলনে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম বলেন, আগামী নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বিজয় নিশ্চিত করতে হবে। ওই বিজয়ের মধ্যে দিয়ে শেখ হাসিনাকে আবার প্রধানমন্ত্রী করতে হবে। যদি তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে না পারেন তাহলে বাংলাদেশ সন্ত্রাসীদের অভয়ারণ্য হয়ে যাবে। এদিকে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে। 
তিনি বলেন, পদ্মাসেতু যাতে উদ্বোধন না হয় সেজন্য একটি গোষ্ঠী ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে। এই ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় আগামী ২৫ তারিখ পর্যন্ত আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীদের সজাগ থাকতে হবে।
আদাবর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মান্নানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিন শামীমের সঞ্চালনায় সম্মেলনে আরো বক্তব্য রাখেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এস এম কামাল হোসেন, মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এসএম মান্নান কচি, স্থানীয় সংসদ সদস্য সাদেক খান প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...