Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
ভোলার চরফ্যাসনে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থদের মাঝে খাদ্যশস্য বিতরণ হেফাজত নেতা আতাউল্লাহ ও শাখাওয়াত ছয় দিনের রিমান্ডে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে হচ্ছে শত বছরের মাস্টার প্ল্যান লিবিয়ায় আটকে পড়া ১৬০ জন বাংলাদেশিকে দেশে ফিরিয়ে আনা হয়েছে রাষ্ট্রপতি আগামীকাল দ্বিতীয় ডোজ কোভিড-১৯ ভ্যাকসিন নিবেন প্রধানমন্ত্রী বিপন্ন মানবতার পাশে দাঁড়িয়ে দৃষ্টান্ত স্থাপন করছেন : ওবায়দুল কাদের সকল রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ভ্যানগার্ড হিসেবে কাজ করবে আওয়ামী লীগ : তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে অভিনন্দন জানালেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী টেকসই নগরায়নের পাশাপাশি গ্রামগুলোকেও পরিকল্পিতভাবে গড়ে তুলতে হবে : স্থানীয় সরকার মন্ত্রী সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রায় ১ হাজার গাছ লাগানো হচ্ছে
  • আপডেট টাইম : 26/04/2021 06:39 PM
  • 27 বার পঠিত

ভারতে করোনার পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় এখনই ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) চতুর্থদশ আসর স্থগিত করার আহ্বান জানিয়েছেন পাকিস্তানের সাবেক স্পিড স্টার শোয়েব আকতার। এমনকি আগামী জুনে পুনরায় শুরু হতে যাওয়া নিজ দেশের পাকিস্তান সুপার লিগও (পিএসএল) স্থগিত করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
নিজের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে শোয়েব বলেন, ‘ক্রিকেটের চেয়ে মানুষের জীবন বাঁচানো বেশি গুরুত্বপূর্ণ। ভারতে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহ রুপ নিয়েছে। যথাযথ ব্যবস্থা নিয়ে চালিয়ে যেতে না পারলে তাদের আইপিএল বন্ধ করা উচিত। পিএসএল স্থগিত হয়েছিল বলে যে আইপিএলও স্থগিত করার কথা বলছি, তা নয়। আমি মনে করি, জুনে পিএসএলও স্থগিত হওয়া উচিত।’
তিনি আরও বলেন, ‘আইপিএল গুরুত্বপূর্ণ কিছু নয়। সেখানে যে পরিমাণ টাকা খরচ করা হচ্ছে, সেটা অক্সিজেন ট্যাংক কেনার জন্য ব্যয় করা উচিত। এটা মানুষকে মুত্যুর হাত থেকে বাঁচাবে। এই মুহূর্তে আমাদের ক্রিকেট কিংবা বিনোদনের প্রয়োজন নেই। আমরা ভারত-পাকিস্তানের মানুষের জীবন বাঁচাতে চাই। আমি এভাবে জোর দিয়ে বলছি, কারণ মানুষের জীবন এখন সংকটের মুখে। চলতি সংকট সামাল দেওয়া কোন সরকারের পক্ষেই সম্ভব না। সরকার ও ভক্তদের কাছে আমার অনুরোধ রইল, ভারতকে সাহায্য করুন। ভারতের অনেক অক্সিজেন ট্যাংক দরকার। তাদের অক্সিজেন সরবরাহের জন্য আসুন সবাই মিলে তহবিল গঠন করি।’
নিজ দেশের বর্তমান পরিস্থিতি তুলে ধরে শোয়েব বলেন, ‘পাকিস্তান খাদের কিনারে রয়েছে। আর মাত্র ১০ শতাংশ অক্সিজেন রয়েছে। কিন্তু মানুষজন সঠিক সুরক্ষাব্যবস্থা মানছে না। রমজানের শেষ ১০ থেকে ১৫ দিন পাকিস্তানে কারফিউ জারির আবেদন জানাচ্ছি। ঈদের কেনাকাটায় যাওয়ার দরকার নেই। লোকজনকে সাবধান থাকতে নিজেদের সুরক্ষা নিজেদেরই নিশ্চিত করতে হবে।’
গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা-আক্রান্ত হয়েছেন সাড়ে তিন লাখের উপর মানুষ। মৃত্যু হয়েছে ২,৮১২। পাকিস্তানে ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত্যু হয়েছে ১১৮ জনের। একই সময়ে নতুন সংক্রমণের সংখ্যা সাড়ে পাঁচ হাজারের বেশি।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...