Logo
×
ব্রেকিং নিউজ :
শিগগিরই ডাকসেবা কাঙ্খিত মানে উন্নীত হবে : ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী সড়ক নিরাপত্তা কার্যক্রম টেকসই করতে হবে : রাষ্ট্রপতি বেপরোয়া গতিতে ঝুঁকিপূর্ণভাবে মোটরযান চালনা সড়ক দুর্ঘটনার অন্যতম কারণ : প্রধানমন্ত্রী শাওমি বাংলাদেশ ব্র্যান্ডের উদ্বোধন করলেন টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী প্রদর্শনী সেন্টারের উদ্বোধন হলো বন্ধ মিল চালু করতে সময়াবদ্ধ কর্মপরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে দাখিলের নির্দেশ শিল্প সচিবের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বজায় রাখতে দলীয় নেতা কর্মীদের প্রতি আহবান প্রধানমন্ত্রীর সাম্প্রদায়িক সংঘাতের প্রতিবাদে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে মানববন্ধন টেকসই উত্তরণ ত্বরান্বিত করতে উৎপাদন সক্ষমতা বাড়াতে হবে : রাবাব ফাতিমা বাল্য বিয়ে রোধে ইউনিয়ন পর্যায়ে সচেতনতামূলক প্রচারণার সুপারিশ স্থায়ী কমিটির সভায়
  • আপডেট টাইম : 01/01/1970 08:00 PM
  • 442 বার পঠিত

আনারস খেতে অনেকেই পছন্দ করে। গ্রীষ্মকালীন এ ফলটির মধ্যে রয়েছে অনেক পুষ্টিগুণ। আনারস অ্যান্টিঅক্সিডেন্টের ভালো উৎস। এটি প্রদাহ কমাতে ও রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়াতে কাজ করে।

আনারসের মধ্যে থাকা ব্রোমেলেইন এনজাইমের কারণে এটি হজম ভালো করে। এ ফলটি ক্যানসার প্রতিরোধেও উপকারী। আনারসে রয়েছে প্রদাহরোধী উপাদান। এটি আর্থ্রাইটিস প্রতিরোধে কার্যকর।

তবে এত পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ এ ফলটি কি গর্ভাবস্থায় খাওয়া উপকারী?  ভারতীয় ওয়েবসাইট টাইমস অব ইন্ডিয়া ও স্বাস্থ্যবিষয়ক ওয়েবসাইট হেলথলাইন জানিয়েছে এর উত্তর।

আনারস বেশ পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ ফল। তবে এ ফলটি থেকে গর্ভবতী নারীকে একটু দূরেই থাকতে বলা হয়। কারণ, আনারসের মধ্যে রয়েছে উচ্চ মাত্রায় ব্রোমেলেইন। এ এনজাইমটি সারভিক্সকে নরম করে দেয় এবং জরায়ুর সংকোচনকে উদ্দীপ্ত করে। এ কারণে আগেভাগে সন্তান জন্ম হতে পারে, যেটি মা ও শিশু উভয়ের জন্যই ক্ষতিকর।

এ ছাড়া ব্রোমেলেইন গর্ভপাতও ঘটিয়ে দিতে পারে। তাই গর্ভাবস্থায় আনারস খাওয়া এড়িয়ে যাওয়ার পরামর্শই দেন বিশেষজ্ঞরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..
ফেসবুকে আমরা...